মঙ্গলবার, ১৮ জুন ২০২৪, ০২:০৬ অপরাহ্ন
শিরোনাম :
সৌদি আরবের সঙ্গে মিল রেখে লক্ষ্মীপুরে ১১ গ্রামে ঈদুল আযহা উদযাপন লক্ষ্মীপুর ৪ রামগতি-কমলনগরের রাজনীতিক নেতারা কে কোথায় ঈদ করবেন! ছাত্রলীগ নেতা সজীব হত্যার আসামিদের গ্রেপ্তারের দাবীতে বিক্ষোভ সমাবেশ কমলনগরে লরেন্স ইউনিয়নের প্যানেল চেয়ারম্যান আবদুল খালেক লক্ষ্মীপুরে ট্রাকচাপায় বাইসাইকেল আরোহী নিহত চর রমনী ইউনিয়ন ব্যবসায়ীর ২ লক্ষ টাকা ছিনতাই এর অভিযোগ যুবলীগ নেতা কামরুল সরকারগংদের বিরুদ্ধে  ঋণের বেড়াজালে পড়ে কমলনগরে ব্যবসায়ির আত্মহত্যা কমলনগরে স্হানীয় সম্পদ আহরণ-বাজেট বিষয়ক প্রশিক্ষণসভা লক্ষ্মীপুর পৌরসভায় ভিজিএফএর চাল পেল ৫ হাজার অসহায় পরিবার কোরবানি পশুর  বর্জ্য ২৪ ঘন্টার মধ্যে অপসরণের নির্দশ দিলেন পৌর মেয়র

‘আমরা তো দুইবার প্রতারণার শিকার হয়েছি : মির্জা ফখরুল

সংবাদ দাতার নাম
  • প্রকাশের সময় : রবিবার, ১১ জুন, ২০২৩
  • ৫০ বার পড়া হয়েছে

আওয়ামী লীগের বিরুদ্ধে বিগত নির্বাচনের আগে সংলাপে দেওয়া প্রতিশ্রুতি ভঙ্গের অভিযোগ করেছেন বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর।

তিনি বলেন, ‘আমরা তো দুইবার প্রতারণার শিকার হয়েছি। তৃতীয়বার দেশের মানুষ আর প্রতারণার শিকার হবে না।’

শনিবার (১০ জুন) দুপুরে রাজধানীর সেগুনবাগিচায় বিএনপি নেতা গৌতম চক্রবর্তীর প্রথম মৃত্যুবার্ষিকী উপলক্ষে ঢাকা রিপোর্টার্স ইউনিটিতে বাংলাদেশ হিন্দু বৌদ্ধ খ্রিষ্টান কল্যাণ ফ্রন্ট আয়োজিত এক স্মরণসভায় মির্জা ফখরুল এসব কথা বলেন।

মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর বলেন, ‘গত ১৮–তে (২০১৮ সালের নির্বাচনের আগে) ডেকেছিলেন আলোচনার জন্য, সংলাপের জন্য, আমরা গিয়েছিলাম। আমরা ভেবেছিলাম আলোচনার মাধ্যমে যদি একটা অবস্থা তৈরি হয়, সেই অবস্থাতে আমরা যদি নিরপেক্ষ নির্বাচনের ব্যবস্থা করতে পারি, তাহলে জনগণের ইচ্ছা–আকাঙ্ক্ষা পরিবর্তন ঘটাতে পারব।’

ক্ষমতাসীনরা সংলাপের প্রতিশ্রুতি রক্ষা না করায় তাঁদের সেই আকাঙ্ক্ষা পূরণ হয়নি অভিযোগ করে তিনি বলেন, ‘আমরা পরিষ্কার করে বলতে চাই, তোমাদের এসব কথায় কেউ ভুলবে না। কারণ, তোমরা কখনোই প্রতিশ্রুতি রক্ষা করো না। জাতির কাছে দেওয়া প্রতিশ্রুতি রাখো না।’

২০১৮ সালের নির্বাচন এবং তার আগে ২০১৪ সালের নির্বাচনের প্রসঙ্গ টেনে বিএনপির মহাসচিব মন্তব্য করেন, ‘ওই দুটি নির্বাচন মানুষ দেখেছে। আবার ওই জায়গায় ফেরত যাওয়ার প্রশ্নই উঠতে পারে না।’

নির্বাচনের সময় কাউকে গ্রেফতার বা হয়রানি করা যাবে না বলে আইনমন্ত্রীর বক্তব্য প্রসঙ্গে মির্জা ফখরুল বলেন, ‘আইনমন্ত্রী সংসদে বলেছেন, যখন নির্বাচন চলবে, তখন আর কাউকে গ্রেফতার করা যাবে না, আটক করা যাবে না। এ কথা কে বিশ্বাস করবে? এ তো রাখাল বালকের গল্পের মতো। রাখাল বালক গ্রামবাসীকে বোকা বানানোর জন্য বাঘ আসছে বলে চিৎকার করত, কিন্তু বাঘ আসেনি। তৃতীয়বার যখন সত্যি সত্যি বাঘ এসেছিল, তখন রাখাল বালক চিৎকার করলেও গ্রামবাসী আর আসেনি।’

নির্দলীয় তত্ত্বাবধায়ক সরকারের বিএনপির দাবি নিয়ে মির্জা ফখরুল ইসলাম বলেন, ‘ক্ষমতাসীন দলের নেতা–মন্ত্রীরা বলছেন তত্ত্বাবধায়ক সরকার এখন ডেড ইস্যু। ডেড ইস্যু হবে কেন? এটা সবচেয়ে লাইভ ইস্যু। কারণ, আমরা মনে করি, এই সরকারের এই মুহূর্তে পদত্যাগ করা উচিত।’

হিন্দু বৌদ্ধ খ্রিষ্টান কল্যাণ ফ্রন্টের চেয়ারম্যান বিজন কান্তি সরকারের সভাপতিত্বে এবং মহাসচিব তরুণ কুমার দের সঞ্চালনায় আলোচনা সভায় গণফোরামের সাধারণ সম্পাদক সুব্রত চৌধুরী, হিন্দু বৌদ্ধ খ্রিষ্টান কল্যাণ ফ্রন্টের উপদেষ্টা অধ্যাপক সুকোমল বড়ুয়া, তপন চন্দ্র মজুমদার, সুশীল বড়ুয়া, ভাইস চেয়ারম্যান অপর্ণা রায়, নিতাই চন্দ্র ঘোষ, রমেশ দত্ত, প্রয়াত নেতার ছেলে গৌরব চক্রবর্তী প্রমুখ বক্তব্য দেন। অনুষ্ঠানে গৌতম চক্রবর্তীর সহধর্মিণী ও ফ্রন্টের উপদেষ্টা দীপালি সাহা চক্রবর্তী উপস্থিত ছিলেন।

সংবাদ টি ভালো লাগলে শেয়ার করুন

এ বিভাগের আরো সংবাদ

আজকের নামাজের সময়সুচী

  • ফজর
  • যোহর
  • আছর
  • মাগরিব
  • এশা
  • সূর্যোদয়
  • ৩:৪৬ পূর্বাহ্ণ
  • ১২:০২ অপরাহ্ণ
  • ১৬:৩৮ অপরাহ্ণ
  • ১৮:৫১ অপরাহ্ণ
  • ২০:১৭ অপরাহ্ণ
  • ৫:১০ পূর্বাহ্ণ
কপিরাইট © ২০২৩সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত
themesba-lates1749691102